হে আমার অন্ধ কওম তোমাদের সামনে ভোগবাদীত্বে বিশ্বাসী এক তরুণ প্রজন্ম।

উঠে আসছে অন্ধ ভোগবাদীত্বে বিশ্বাসী এক তরুণ প্রজন্ম। মুক্তি আসবে কাদের হাত ধরে?

পাকিস্তান ঘাস খেয়ে এটম বোমা বানানোর স্বপ্ন দেখেছিল । ১৯৭২ সালে দেখা সেই স্বপ্নটা তারা এসে পূরণ করেছে ১৯৯৮ সালে ।
.
এটম বোম বানিয়েই ছেড়েছে । তারা শিক্ষার্থীদের নিউক্লিয়ার সাইন্সে উন্নত করছে । উন্নত করেছে গবেষণায়। চীনের সাথে মিলে তৈরি করছে ফাইটার জেট ।
.
ভারত ও সমান তালে এগিয়ে গেছে অনেক দুর নিউক্লিয়ার বোমা থেকে শুরু করে উন্নত প্রযুক্তির ব্যবহার এবং উদ্ভাবনে তাঁরাও পিছিয়ে নেই।
.
বাংলাদেশি জেনারেশনের একটা বড় অংশ সালমান মুক্তাদির , তাহসিনেশন , তিশা আর এয়ারটেলের নাটক নিয়ে ব্যস্ত। এরা আবাহনী, মোহামেডান নিয়ে মারামারি করে না। বান্ধবীর পোস্টে হা হা রিঅ্যাক্ট দিলে দলবল নিয়ে হামলা করে ।
.
ক্যাম্পাস নিয়ে মারামারি করে। কনসার্টের টিকেট নিয়ে ফাইট করে। যতো সহজে এরা বিভিন্ন চ্যাটিং এপসের নাম বলতে পারে, ততো সহজে এরা কোন বৈজ্ঞানিক কার্যকরন ব্যাখ্যা করতে পারে না।
.
এরা ব্রাজিল আর্জেন্টিনার ফুটবল কোচের স্ট্র্যাটেজির ভুল ধরে ফেলে কিন্তু নিজের দেশটা যে আন্তর্জাতিক রাজনীতির ফুটবল হয়ে লাথি খাচ্ছে সেটা বুঝতে পারেনা।
.
এরা পুতিন, ট্রাম্প, বরিস জনসনের রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের ভুল বুঝতে পারে কিন্তু কিভাবে স্বাধীনতার পর আমাদের পাট শিল্প, গার্মেন্টস শিল্প, চামড়াশিল্প হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে সেটা বুঝতে পারে না।
.
এদের জীবনের একটা বড় অংশ কাটে ইউটিউবের কিছু থার্ড ক্লাস ভিডিওতে চোখ রেখে। জীবনের আরেকটা অংশ কাটে রিলেশনে কি করেছি আর কি করি নাই এসব ভেবে।
.
নজরুল আস্থা রেখেছিলেন তরুণ প্রজন্মের উপর । তিনি আশা করেছিলেন আধমরাদের ঘাঁ মেরে এরাই জাগিয়ে তুলবে।
.
বর্তমান অবস্থা দেখে আমার মনে হচ্ছে বরং আধমরাদেরই ঘাঁ মেরে তরুণ প্রজন্মকে জাগিয়ে তুলতে হবে !

লেখাঃ আহমেদ রফিক বারকি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *