জেনে নিন অলিভ অয়েলের বহুমুখী উপকার ডায়াবেটিস আটকাতেও এই তেল অনবদ্য

ডিএক্সএন অলিভ অয়েল

অলিভ অয়েল বা জলপাই তেলের গোটা বিশ্বজুড়ে বিপুল ব্যবহার কিন্তু খুব বেশি দিনের পুরনো ঘটনা না। সারা বিশ্ব জুড়ে এপিডেমোলজিকাল গবেষণা বাড়ার পরেই অলিভ অয়েলের জনপ্রিয়তা বেড়ে যায় হুহু করে। জলপাই গাছের ফলন ভূমধ্যসাগরীয় এলাকাতেই সবচেয়ে বেশি। গোটা জলপাই ফলটি নিষ্পেষণ করে তারপরেই তেল পাওয়া।

অলিভ অয়েলের পুষ্টিগুণঃ ফ্যাট সাধারণত তৈরি হয় ফ্যাটি অ্যাসিড থেকে

জলপাই তেল কিছু উপকারিতা:

  1. হার্টের জন্য ভালঃ জলপাই তেলে সর্বাধিক পরিমাণে রয়েছে MUFAs ফ্যাট যা আমাদের রক্তচাপ, স্ট্রোক, হার্টের রোগ এবং ডায়াবেটিসের ঝুঁকির কমাতে সাহায্য করে।
  2. ক্যান্সার থেকে রক্ষা করে: স্কোয়ালেন এবং টেরপেনয়েড-অলভ অয়েলে থাকা এই দুটি যৌগ ক্যান্সার প্রতিরোধী।

ক্যানসারের বিরুদ্ধে লড়ে অলিভ অয়েল

  1. ওজন হ্রাস প্রচার: ইনসুলিন হল এমন হরমোন যা রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করে। উচ্চ ইনসুলিনের মাত্রা বাড়লে চর্বি জমা শুরু হয় শরীরে। মাঝারি কার্বোহাইড্রেটের সাথে এই তেলে থাকা ভালো ফ্যাট ওজন কমাতে কাজ দেয়।

৪. ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ: পলি ও মোনোস্যাচুরেটেড ফ্যাট ডায়াবেটিস আটকাতে ভীষণই সক্রিয়। এই তেল রক্তে গ্লুকোজ কমায়, কার্বোহাইড্রেট শোষণ হ্রাস করে, এবং ইনসুলিনে সংবেদনশীলতা বৃদ্ধি করে।

  1. সাধারণ স্বাস্থ্য: হরমোনের ভারসাম্য এবং দেহের বিভিন্ন প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে। মানসিক রোগ এবং ডিপ্রেশনের মোকাবিলা করে। জলপাই তেলের অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলি সেলুলার স্ট্রেস কমিয়ে অকাল বার্ধক্য রুখে দেয়।

অলিভ অয়েল হরমোনের ভারসাম্য বজায় রাখে

কেনা আর ব্যবহারের সময় মাথায় রাখুনঃ

6 মাসের বেশি জলপাই তেল জমিয়ে রাখবেন না।

বোতলের মধ্যে শীতল শুষ্ক স্থানে তেল রাখুন। আরো জানতে +966534424828 ( whats app call imo)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *